কূটনীতিক বিড়াল!

ঢাকা: সাম্প্রতিককালে লন্ডনের ওয়েস্টমিনিস্টার এলাকায় পররাষ্ট্র দপ্তরের সদরদপ্তরে ইঁদুরের উপদ্রব বেড়ে যাওয়ায় কর্তৃপক্ষ একটি বিড়াল ভাড়া করেছে। বেওয়ারিশ এই বিড়ালটি পাওয়া গিয়েছিল লন্ডনের রাস্তায়। কর্মকর্তারা বলছেন, বিড়ালটি এখন পেস্ট নিয়ন্ত্রণকারীদের সহায়তা করবে যাতে ইঁদুরের সংখ্যা বাড়তে না পারে। খবর বিবিসির।ঊনবিংশ শতাব্দীতে ব্রিটেনের প্রখ্যাত সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং পরে যিনি প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছিলেন সেই লর্ড প্যামারস্টনের নামে বিড়ালটির নামকরণ করা হয়েছে। বিড়ালটি এখন আছে বিড়াল ও কুকুরের একটি আশ্রয় কেন্দ্রে। আগামীকাল বুধবার দুপুরে বিড়ালটি পররাষ্ট্র দপ্তরের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

লন্ডনের রাস্তা থেকে উদ্ধারের পর বিড়ালটিকে এই আশ্রয় কেন্দ্রে রাখা হয়েছিল।

কর্তৃপক্ষ বলছে, বিড়ালটি বেশ আত্মবিশ্বাসী এবং তার গায়ে বেশ জোরও আছে।

কর্মকর্তারা আশা করছেন, প্যামারস্টন খুব সহজেই পররাষ্ট্র দপ্তরের ভবনে তার শত্রু ও মিত্রদের চিহ্নিত করতে পারবে।

যে আশ্রয় কেন্দ্রটিতে প্যামারস্টন ছিলো তার কর্মকর্তারা বলছেন, বিড়ালটি খুব আমুদে, সে মানুষজনের সঙ্গে থাকতে পছন্দ করে।

“ঈগলের মতো তীব্র চোখ তার। কোনো ইঁদুরই তাকে ফাঁকি দিতে পারবে না,” বলেছেন কর্মকর্তা লিন্ডসে কুইনল্যান।

বিড়ালটি এখন থাকবে ব্রিটেনের অত্যন্ত বিখ্যাত একটি ঠিকানায় যেখানে দেশটির শীর্ষস্থানীয় কূটনীতিক ও মন্ত্রীরা কাজ করেন। ডাউনিং স্ট্রিটে পাঁচ বছর আগে ল্যারি নামের বিড়ালটিকেও আনা হয়েছিল এই আশ্রয় কেন্দ্রটি থেকে।

12717662_823504967760495_4449017918061543721_n


Related posts

মন্তব্য করুন