সর্বশেষ সংবাদ

ডিএন কলেজে ভর্তি ফি বেশী হওয়ায় বিপাকে অভিবাবক ঝরে যেতে পারে দরিদ্র মেধাবী শিক্ষার্থীরা।

 

Brandbazaarbd.com's photo.

সিনিয়র রিপোর্টার,অাবুল হাশেম ফকির,24KHOBOR.COM

দোহার নবাগঞ্জ কলেজে অন লাইন পদ্ধতিতে গত ২৬শে জুন শুরু হয় অনলাইন ভর্তি আবেদন। আবেদনের ফলাফল ঘোষান করা হবে আজ ১৬ই জুন।

এদিকে ভর্তিইচ্ছুক ছাত্র ছাত্রীদের নান বিষয়ে অামাদের 24khobor.com এর বিশেষ রিপোর্টার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ জনাব, মোঃ অানোয়ার হোসেনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন বিজ্ঞান বিভাগের ভর্তির জন্য সর্বমোট ৫৩০০ টাকা,ব্যাবসায় ৪৬০০ টাকা এবং মানবিক বিভাগের জন্য ৪৫০০ টাকা ধার্য করা হইয়াছে।

দোহার-নবাবগঞ্জ (ডিএন) কলেজে

অপরদিকে বিজ্ঞান বিভাগে আসন সংখ্যা ১৫০টি কিন্তু অাবেদন জমা পরেছে ২৬০ জনের।

মানবিক বিভাগে আসন সংখ্যা ৪০০ টি কিন্তু আবেদন জমা পড়েছে ৬৫৫ জনের ।

এবং ব্যাবসায় বিভাগে আসন রয়েছে ৭০০ টি কিন্তু আবেদন জমা পড়েছে ৮০৯ জনের।

এই কলেজ থেকে গতবার একজন গোল্ডেন সহ
A+পেয়েছেন ৬ জন।
পাশের হার ৬৮% ।
এদিকে বিভিন্ন তথ্যের বিক্তিতে নবাবগঞ্জ উপজেলার বাকি দুটি কলেজের মধ্যে ইছামতি ও তোফাজ্জল হোসেন ডিগ্রী কলেজের ভর্তি তথ্যের অনুসন্ধান করলে জানা যায় যে

ইছামতি ডিগ্রী কলেজের ভর্তি ফি নির্ধারণ করা হয়েছে
বিজ্ঞান বিভাগে ৪১০০ টাকা
ব্যাবসায় বিভাগে ৪০০০ টাকা
এবং মানবিক বিভাগে ৩৯০০ টাকা

সেই সাথে তোফাজ্জল হোসেন ডিগ্রী কলেজের ভর্তি ফি নির্ধারণ করা হয়েছে
বিজ্ঞান বিভাগে ৩৫০০+১০০ টাকা
ব্যাবসায় বিভাগে ৩৫০০+১০০ টাকা
এবং মানবিক বিভাগে ৩৫০০+১০০টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

সকল তথ্যের ভিক্তিতে দেখা যায় যে, নবাবগঞ্জ উপজেলার ৩ টি কলেজের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ভর্তি ফি নির্ধারণ করেছে দোহার নবাবগঞ্জ কলেজ। যার ফলে অভিবাবকরা পড়েছে বিপাকে। ধারনা করা হচ্ছে যদি দোহার নবাবগঞ্জ কলেজের ভর্তি ফি কমানো না হয় তা হলে অনেক মেধাবী শিক্ষার্থীরা অকালেই ঝরে যেতে পারে।
এদিকে দোহার নবাবগঞ্জ কলেজের সকল ছাত্র সংগঠনের দাবি কতৃপক্ষ যেন দরিদ্র মেধাবী শিক্ষার্থীদের কথা বিবেচনা করে তাড়াতাড়ি এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত গ্রহন করেন।



Related posts

মন্তব্য করুন