ধোয়াইর বাজারে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সংর্ঘষ


দোহারের সর্ব পশ্চিমের ইউনিয়ন নয়াবাড়িতে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে তিনজন আহত হয়েছে। এর মাঝে গুরুতর আহত হয়ে একজন ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি আছেন। তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ঘটা এই সংর্ঘষ যেকোন সময় রুপ নিতে পারে রাজনৈতিক সহিংসতায়।
পশ্চিম ধোয়াইরের গাড়ি ব্যবসায়ী মামুনের সাথে ভাড়া নিয়ে সংঘর্ষের সুত্রপাত। গাজীপুরে যাওয়া নিয়ে ভাড়া গাড়িতে ভাড়ার চেয়ে বেশি ভাড়া আদায় করাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের সুত্রপাত। ২৫০০ টাকায় ঠিক হলেও যাত্রীদের কাছে জোড় করে ৪০০০ টাকা আদায় করে গাড়ী চালক মামুন। এই নিয়ে ধোয়াইর গ্রামের পত্তনদার বাড়ীর চিনু পত্তনদার গাড়ী চালক মামুনের বাবা ইছাককে ধোয়াইর বাজারে প্রশ্ন করলে তাদের মাঝে কথা কাটাকাটি হয়। এর পর মামুন বাহ্রা ঘাটের সোহাগ ও তার বন্ধুকে ডেকে এনে ধোয়াইর বাজারে চিনু পত্তনদারকে আক্রমন করে। এর ফলে চিনু পত্তনদারের ঘাড়ের হাড় ভেঙ্গে যায়। ফলে তাকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয়।
এদিকে ঘটনার পর থেকেই মামুন ও তার বাড়ির সকলে পলাতক আছে।
এই ঘটনার পর বাহ্রার মুক্তারকে ধরে পেটায় চিনু পত্তনদারের সমর্থকরা। এই ঘটনার পর এলাকায় উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। ফলে নিয়মিত পুলিশ টহল দিচ্ছে ধোয়াইর গ্রামে।

 



Related posts

মন্তব্য করুন