সর্বশেষ সংবাদ

বিএনপি নেতা হান্নান শাহ আর নেই

 

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) আ স ম হান্নান শাহ সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

আজ মঙ্গলবার ভোরে সিঙ্গাপুরের র‍্যাফেল হার্ট সেন্টারে হান্নান শাহ শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ের গণমাধ্যম শাখার কর্মকর্তা শায়রুল কবীর খান এনটিভি অনলাইনকে বিষয়টি জানিয়েছেন। তিনি জানান, সিঙ্গাপুর সময় ভোরে হান্নান শাহ হাসপাতালে মারা যান। সেখানে তাঁর ছোট ছেলে শাহ রিয়াজুল হান্নান ও মেয়ে শারমিন হান্নান রয়েছেন। তাঁরা বিষয়টি জানিয়েছেন।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) আ স ম হান্নান শাহ সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।  আজ মঙ্গলবার ভোরে সিঙ্গাপুরের র‍্যাফেল হার্ট সেন্টারে হান্নান শাহ শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।  বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ের গণমাধ্যম শাখার কর্মকর্তা শায়রুল কবীর খান এনটিভি অনলাইনকে বিষয়টি জানিয়েছেন। তিনি জানান, সিঙ্গাপুর সময় ভোরে হান্নান শাহ হাসপাতালে মারা যান। সেখানে তাঁর ছোট ছেলে শাহ রিয়াজুল হান্নান ও মেয়ে শারমিন হান্নান রয়েছেন। তাঁরা বিষয়টি জানিয়েছেন।  শাহ রিয়াজুল হান্নান জানান, স্থানীয় সময় ভোর ৫টা ৩৭ মিনিটে হান্নান শাহর মৃত্যু হয়।  সিঙ্গাপুর বিএনপির সভাপতি আবদুল কাদের জানান, আজ বাদ এশা সিঙ্গাপুরের ছেরাঙ্গন রোডে অবস্থিত অ্যাঙ্গোলিয়া জামে মসজিদে মরহুমের জানাজা অনুষ্ঠিত হবে।  আ স ম হান্নান শাহর মৃত্যুতে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া এবং মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। তাঁরা শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করেছেন।  গত ৬ সেপ্টেম্বর অসুস্থ অবস্থায় ৭৫ বছর বয়সী হান্নান শাহকে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) ভর্তি করা হয়। সেখানকার নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে (আইসিইউ) তাঁকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়।  ভর্তি হওয়ার দুই দিন পর হান্নান শাহর শারীরিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি হয়। পরে ১০ সেপ্টেম্বর আবার তাঁর অবস্থার অবনতি ঘটে। এর পর উন্নত চিকিৎসার জন্য তাঁকে বিদেশ পাঠানোর কথা বলেন চিকিৎসকরা।  হান্নান শাহ দীর্ঘদিন ধরে হৃদরোগে ভুগছিলেন। ১১ সেপ্টেম্বর রাতে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে হান্নান শাহকে সিঙ্গাপুরে নেওয়া হয়। র‌্যাফেল হার্ট হাসপাতালের  চিকিৎসক ডা. অ্যালভিন এনজির নেতৃত্বে একদল চিকিৎসক হান্নান শাহর শরীরে অস্ত্রোপচার করেন।

শাহ রিয়াজুল হান্নান জানান, স্থানীয় সময় ভোর ৫টা ৩৭ মিনিটে হান্নান শাহর মৃত্যু হয়।

সিঙ্গাপুর বিএনপির সভাপতি আবদুল কাদের জানান, আজ বাদ এশা সিঙ্গাপুরের ছেরাঙ্গন রোডে অবস্থিত অ্যাঙ্গোলিয়া জামে মসজিদে মরহুমের জানাজা অনুষ্ঠিত হবে।

আ স ম হান্নান শাহর মৃত্যুতে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া এবং মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। তাঁরা শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করেছেন।

গত ৬ সেপ্টেম্বর অসুস্থ অবস্থায় ৭৫ বছর বয়সী হান্নান শাহকে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) ভর্তি করা হয়। সেখানকার নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে (আইসিইউ) তাঁকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়।

ভর্তি হওয়ার দুই দিন পর হান্নান শাহর শারীরিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি হয়। পরে ১০ সেপ্টেম্বর আবার তাঁর অবস্থার অবনতি ঘটে। এর পর উন্নত চিকিৎসার জন্য তাঁকে বিদেশ পাঠানোর কথা বলেন চিকিৎসকরা।

হান্নান শাহ দীর্ঘদিন ধরে হৃদরোগে ভুগছিলেন। ১১ সেপ্টেম্বর রাতে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে হান্নান শাহকে সিঙ্গাপুরে নেওয়া হয়। র‌্যাফেল হার্ট হাসপাতালের  চিকিৎসক ডা. অ্যালভিন এনজির নেতৃত্বে একদল চিকিৎসক হান্নান শাহর শরীরে অস্ত্রোপচার করেন।



Related posts

মন্তব্য করুন