সর্বশেষ সংবাদ

খানেপুর-আলালপুর সংযোগ সেতু, নির্মান ব্যায় হবে, ৩,১৭,০০,৬৯৬.০৫০ টাকা

 

মোঃ নাজমুল হোসেন
স্টাফ রিপোর্টার
24khobor.com

ঢাকার নবাবগঞ্জ উপজেলার সবচেয়ে অবহিলিত ইউনিয়নের নাম যখন বলা হতো, সবার আগে আসতো নয়নশ্রী ইউপির নাম। নয়নশ্রীর শ্রী ফিরাতে অনেকেই চেয়েছিলেন কিন্তু শ্রী ফিরানোতো দূরের কথা নিজেই যেনো শ্রী হীন হয়ে যায়তেন। কিন্তু এখন খানেপুর গ্রামে বইছে আনন্দের জোয়ার। সেই জোয়ারে ভাসছে পুরো নয়নশ্রী বাসী। কারন তারা এখন বিশ্বাস করে স্বপ্ন দেখে যাওয়ার দিন শেষ এখন শুধু স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দেওয়ার সময়। যার দুটি প্রমান হচ্ছে খানেপুর-আলালপুর সংযোগ সেতু ও নয়নশ্রী ব্রিজ হতে খানেপুর হয়ে তুইতাল বাজার পর্যন্ত ৪ কিলোমিটার রাস্তা নির্মান কাজ একই সাথে চলছে।

খানেপুর-আলালপুর সংযোগ সেতু, নির্মান ব্যায় হবে, ৩,১৭,০০,৬৯৬.০৫০ টাকা

সেতুটি নির্মান করতে মোট ব্যায় হবে, ৩,১৭,০০,৬৯৬.০৫০ টাকা (তিন কোটি সতের লক্ষ ছয়শত ছিয়ানব্বই টাকা পঞ্চাশ পয়শা) সেতুটির দৈর্ঘ্য হবে, ৯৩.১৫০ মিটার।

সেই সাথে ব্রিজ সম্পর্কে জিজ্ঞেস করলে খানেপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ আমজাদ হোসেন বলেন,আমার বসত বাড়ির সিংহভাগ ব্যবহার করে নির্মিত হচ্ছে খানেপুর – আলালপুর সংযোগ সেতু ৷ আমি আমার পরিবার আনন্দিত এই ভেবে যে আশরাফুল মাখলুকাত মানুষের সেবায় সামান্য হলেও কুরবানি করার তওফিক আল্লাহ্ দিয়েছেন ৷ আলহামদুলিল্লাহ্ ৷  ব্রিজটি আমাদের একান্তই দরকার ছিলো। কারন ব্রিজ না থাকায় ওপারের ছাত্র/ছাত্রীদের আসতে খুবই কষ্ট হয়। বিশেষ করে টিফিন ও ছুটির সময় নদীতে নৌকা পাড় হওয়াটা ছোট ছোট বাচ্চাদের জন্য খুবই কষ্ট কর ও মারাত্বক ঝুকি। কারন এখানে অনেক ছাত্র বা ছাত্রী আছে যারা সাঁতার কাটতে পারে না। ফলে অনেক সময় দেখা যায় বেখালে নৌকা ডুবে যায়। আর এসব ঝুঁকি নিয়েই আমাদের স্কুলটি পরিচালনা করতে হয়। তিনি আরো বলেন, এসব ঝুকির কথা চিন্তা করে অনেক অভিবাবক তাদের সন্তানদের কে আমাদের বিদ্যালয়ে ভর্তি করতে উৎসাহ দেখান না। আমি মনে করি ব্রিজটি পুরা পুরি নির্মান হয়ে গেলে খানেপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীর সংখ্যা অনেকটাই বৃদ্ধি পাবে।

 



Related posts

মন্তব্য করুন