টিভির ক্ষেত্রে SONY না SAMSUNG !!!!! কিনবেন কোনটা?

টিভির ক্ষেত্রে SONY না SAMSUNG !!!!! কিনবেন কোনটা?

অনেকে বিভিন্ন সময় টিভি কেনার ব্যাপারে সাজেশন চেয়ে থাকেন। অধিকাংশ সময়েই SONY & SAMSUNG এর ব্যাপারে কোনটা কিনবেন সে ব্যাপারে সাজেশন চান। আমি এই ব্যাপারে ভাই বিজ্ঞ কেউ নই। কিন্তু ব্যাবহারিক জ্ঞান আর অভিজ্ঞতা থেকে কিছু তথ্য শেয়ার করতে চাই। ভাই এখানে অনেকে হয়ত অনেকের মন্তব্য করতেও পারেন। করলে ভালই লাগবে, আরো জানা হবে, ভুল থাকলে সংশোধন হবে। কিন্তু কতজন আছেন, যে এই LCD, LED টিভি নিয়ে এনালাইসিস করেছেন? আমি করেছি। নিজের স্বার্থে, নিজের প্রয়োজনে।
এইখানে আমি কোন টেকি প্যাচাল পারব না এবং পারতে কোন টেকি টার্ম ইউজ করব না, যতটুকু না প্রয়োজন। কারন আমি টেকি না আবার বুদ্ধির ঢেঁকিও না। শুধু একজন ব্যবহারকারী। আমি স্ট্রেইট আপনাদের কয়েকটা সাজেশন দিচ্ছি। গ্রহনের ইচ্ছা সম্পূর্নই আপনার কারন পয়সা আর দর্শন দুই-টাই আপনার-

প্রথমেই এই আলোচনায় একটা স্পয়লার দিচ্ছি। আমি কোনটার দালালি করছি না। দু এক টাকা পেলে হয়ত করতাম কিন্তু তা আমাকে কেউ দিচ্ছে না। যা বলার অভিজ্ঞতা আর এনালাইসিস থেকে বলছি, অবশ্যই এক্সট্রিম ব্যবহারকারীর দৃষ্টিকোন থেকে।

কারো কথায় কান না দিয়ে চোখ বন্ধ করে স্যামসাং কিনুন। কারনঃ

১. আপনি কি জানেন আজকাল অনেকেই ব্লুরে অথবা ডিভিডি প্লেয়ার কেনেনা কারন সবাই USB অথবা Hard Disk drive (Portable) ব্যাবহার করেই মুভি দেখেন। সেক্ষেত্রে বলছি, সনিতে সবচেয়ে বড় বাধা MKV ফরম্যাট আপনি সনিতে চালাতে পারবেন না। একমাত্র হাই রেঞ্জের ২/১ টাতে এই ফরম্যাটের সাপোর্ট দেয়া আছে। অথচ স্যামসাং এর টপ টু বটম সব টিভি তেই এই সাপোর্ট দেয়া আছে।

২. আপনি অবশ্যই Motion Rate এর দিকে খেয়াল রাখবেন। স্যামসাং এর মোশন রেট সনির চেয়ে ভাল। যে প্রাইস এ আপনি স্যামসাং ১০০ হার্জ মোশন ফ্লোর একটা টিভি কিনতে পারবেন সেই একই রেটে আপনি হয়ত সনির ৬০ হার্জ কিনবেন। তাই বলে স্যামসাং খারাপ এই কথা বলার কোন অবকাশ নেই। (মোশন ফ্লো হচ্ছে কত দ্রুত আপনার ফ্রেমগুলো পাস হচ্ছে আপনার টিভিতে, সেই ক্ষমতা। এই কারনে অনেক 1080p ভিডিও অথবা মুভি চলতে আপনার টিভিটে ল্যাগ করতে পারে)

৩. আপনি যদি কানেক্টিভিটির অথবা সাপোর্ট এর কথা বলেন, সনির চেয়ে স্যামসাং আপনাকে অনেক গুন বেশী সুবিধা দেবে। আপনি স্যামসাং এর AllShare -এর বদৌলতে মোবাইল, পিসির সাথে সরাসরি ওয়াইফাই ল্যান করতে পারবেন। যা আপনাকে অন্য রকম টেকি আনন্দ প্রদান করবে। সনিতে করতে গেলে আপনার জিব্বা দেড় হাত বের হবে, অনেক ক্ষেত্রে হবেও না।

৪. যেকোন ফরম্যাটের ইমেজ (*.jpeg, *.bmp/bitmap, *.png etc.) আপনি দেখতে পারবেন USB র মাধ্যমে স্যামসাং এ। সনিতে আপনি পাবেন কিন্তু সব ফরম্যাটের সাপোর্ট পাবেন না।

৫. ব্রাভিয়া ইঞ্জিন ব্রাভিয়া ইঞ্জিন বলে যারা লাফায় তারা আসলে জানেন এইটা কি? আর স্যামসাং-এ কি আছে? এই ব্রাভিয়া ইঞ্জিন মুখ ফুলায়া বলা যায়, তাই ভাল হয়ে গেল? মোটেই না। কোন কমন শো রুমে গিয়ে দেখুন আপনার একই রেঞ্জের দুটো ব্রান্ড-এর দুটো টিভি দেখুন, পার্থক্য পেয়ে যাবেন। (ব্রাভিয়া, রেগজা, প্লানো, রেজর ইতাদি বিভিন্ন ব্র্যান্ডের বিভিন্ন ইঞ্জিন নিয়ে পরে একসময় আলোচনা করা যাবে, আজ কোন টেকি কথা বলব না।)

৬. একই প্রাইস রেঞ্জের এই দুই ব্র্যান্ড এর দুটো টিভি তে বিভিন্ন পোর্ট, রেকর্ডিং সল্যুশন, সাউন্ড এবং অন্যান্য আউট পূট ফেক্টর যাচাই করে দেখুন। স্যামসাং-কেই এগিয়ে রাখবেন আপনি।

৭. আপনার বাজেট যদি ৩৫০০০ এর নীচে হয় তাহলে স্যামসাং এর যে টিভি পাবেন তা পাবেন আপনি ৬০ হার্জ এর কিন্তু সনি পাবেন ৫০ হার্জ এর, যা পুরোই অখাদ্য। রিস্পন্স রেট ২ টু ৩ সেঃ সেখানে ১ সেকেন্ড এর রিস্পন্স রেট পাবেন স্যামসাং-এ। (রিস্পন্স রেট হচ্ছে আপনি রিমোটে যখন press করেন তা কত দ্রুত টিভিতে কাজ করছে, সেটা।)

৮. আবার আপনার বাজেট যদি ২ লক্ষ বা তার বেশি হয় তার মধ্যেও আপনি পার্থক্য বের করতে পারবেন। যাচাই করে দেখুন বর্তমান সনির 4K (X-reality) এবং স্যামসাং-এর UHD. আউটলুক আর পারফর্মেন্স আপনি-ই যাচাই করুন টিভি কম্পেরিজনের ওয়েব সাইটগুলো থেকে।

ভাই এত কথা বলার একটাই কারন, পয়সা খরচ করে আপনি সনিও কিনতে পারেন আবার স্যামসাং। কিন্তু আপনি অবশ্যই ভাববেন উপযোগ কোথা থেকে বেশী পাবেন। আমার ভাই অল্প রোজগারে ভাল একটা টিভি কেনার শখ হয়েছিল। তাই কিপ্টার মত বছর খানেক খালি এনালাইসিস করেছি। তারপর থাইল্যান্ড থেকে Smasung 40″ LED 3D C7000 model TV টা কিনি। আজ অব্দি সেটার সাথে কম্পটিশন দেয়ার মত কোন টিভি পাইনি, এখন অবশ্য 4K আর UHD এসেছে। একই সময় ব্রাভিয়া W এবং X সিরিজ ছিল একই প্রাইসের কিন্তু সেটা ছিল ২০০ হার্জ এর কিন্তু এই স্যামসাং ২৪০ হার্জ , কম্পিটিশনে ছিল অপ্রতিদ্বন্দী। কানেক্টিভিটির ক্ষেত্রে আর ল্যান ফ্যাসিলিটির দিক দিয়ে স্যামসাং অনবদ্য। খালি মুখ ফুলিয়ে ব্রাভিয়া ইঞ্জিন বললেই তো হল না, আসলে মাল টা কি, জানা প্রয়োজন। এরপর আমি আরো চার থেকে পাচটা 32″ টিভি কিনি আমার আত্মীয় স্বজন আর বন্ধু বান্ধব এর জন্য এবং প্রতিবারি আমি Comparative Analysis করেছি। বিশ্বাস করুন স্যামসাং অনবদ্য। যারা দুটাই ব্যাবহার করেছেন তাদেরকে জিজ্ঞাসা করুন পার্থক্য। আমি করেছি। yes Some Saler provide Replacement Guaranty. free devilry , installation .

কোথা থেকে কিনবেনঃ

যদি  ওয়ারেন্টি চান, তাহলে অবশ্যই Brand Bazaar -এর শোরুম থেকে , অন্য কোথাও না। দেশের বাইরে থেকেও না।

দাম কম পরবে কিন্তু ওয়ারেন্টি পাবেন না, তাহলে Brand Bazaar থেকে কিনতে পারেন। কিন্তু Brand Bazaar Assure Replacement Guaranty. Free Installation , Free Delivery.  সত্য বলতে কি ভাগ্য ভাল হলে, ভোল্ট গার্ড অথবা UPS ব্যাবহার করলে এই ক্লেইম-না আ পনার।

তাই যেখান থেকে কিনতে পারেন সেগুলো হল-
(কেবল মাত্র ঢাকার জন্য)

৪. ধানমন্ডি – (Brand Bazaar )
৫.  http://brandbazaarbd.com/, http://www.ac-camera-led-4k-bd.com/ ইত্যাদি লিঙ্কে আপনি বিক্রেতাদের শোরুমের address পেয়ে যাবেন।



Related posts

মন্তব্য করুন