সর্বশেষ সংবাদ

নবাবগঞ্জে গৃহবধূ হত্যা পুনঃময়নাতদন্তের জন্য কবর থেকে লাশ উত্তোলন

16002952_1055636477880675_374283387840025402_n

আলীনূর ইসলাম মিশুঃ

ঢাকার নবাবগঞ্জ উপজেলার চুড়াইন শংকরখালী গ্রামের গৃহবধূ সোনিয়া আক্তারের মৃত্যু নিয়ে রহস্য সৃষ্টি হওয়াতে ৪ মাস পর কবর থেকে লাশ উত্তোলন করা হয়েছে। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গৃহবধূ সোনিয়া আক্তার ও প্রতিবেশী মো. রাসেলের সঙ্গে পারিবারিক সম্মতিতে বিয়ে হয়।

নবাবগঞ্জে গৃহবধূ হত্যা পুনঃময়নাতদন্তের জন্য কবর থেকে লাশ উত্তোলন

 

বিয়ের পর রাসেল কাতার চলে গেলে তার ওপর শ্বশুর, শাশুড়ি ও ননদের নির্যাতন শুরু হয় বলে সোনিয়ার মা অভিযোগ করেন। গত বছরের ১৬ সেপ্টেম্বর রাতে পারিবারিক কলহের জের ধরে কথাকাটাকাটি হয়। পরে সোনিয়ার লাশ তার স্বামীর ঘরে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়। শ্বশুর বাড়ির লোকজনের দাবি, সে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে অপমৃত্যু মামলা দিয়ে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করে। তদন্ত প্রতিবেদনে ফাঁসিতে মারা গেছে বলে জানা যায়। এ ঘটনায় নিহতের মা লাকী আক্তার তার মেয়েকে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করা হয়েছে মর্মে আদালতে মামলা দায়ের করেন। মামলাটি ডিবি পুলিশ তদন্তের ভার পায়। আদালত লাশ উত্তোলন করে ময়নাতদন্তের নির্দেশ দেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শাহনাজ মিথুন মুন্নী, ডিবি পুলিশের কর্মকর্তা এবং নবাবগঞ্জ থানা পুলিশের উপস্থিতিতে লাশ উত্তোলন করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।



Related posts

মন্তব্য করুন