“দোহারে চোরের উপদ্রব অতিষ্ঠ গ্রামবাসী “

 Image may contain: text

আয়েশা সিদ্দিকীঃ
দোহারের জয়পাড়াতে কুঠিবাড়ি এলাকায় বৃহঃপতিবার রাত ৩ টা ১০ এ সৌদি প্রবাসি হাবিবুর রহমানের বাড়িতে চুরি করতে আসা এ দল যুবক সবাই সজাগ বলে ঘড়ে ঢুকে চুরি করতে না পেরে গৃহবধূ নাজমা বেগম (৪৩)ও তা মেয়ে স্বর্নালির( ২৩)উপর অতর্কিত হামলা চালায় এতে নাজমা বেগম গুরুত্বর আহত হন।
"দোহারে চোরের উপদ্রব অতিষ্ঠ গ্রামবাসী "
আহত নাজমা বেগম বলেন, আমার মেয়ে অনেক দিন পর ঢাকা থেকে বাড়িতে এসেছে রাত প্রায় ৩ টা ১০ নাগাদ আমি ও আমার মেয়ে সব কাজ সেরে বসে গল্প করছিলাম ঠিক তখনই একটা লোক মুখ ঢাকা অবস্থায় আমার ঘড়ে ঢুকে আর বেশ কয়েকজন বাহিরে দাড়ানো ছিল আমরা কিছু বুঝে উঠার আগেই আমার মেয়ের গলার চেইন ধরে টান দেয় তখন আমার মেয়ে এক হাত দিয়ে নিজের গলার চেইন ধরে আর এক হাত দিয়ে লোকটার হাত ধরতে গেলে তিনি ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপ দেয় সাথে সাথে আমার মেয়ে সরে যায় পরে আমাকে কোপ বসায়। পরবর্তীতে তাদের আত্মচিৎকারে পাশের বাড়ির লোকজন এগিয়ে আসলে তারা পারিয়ে যায়। সাথে সাথে দোহার থানায় ডিউটি অফিসার সহ ওসি সিরাজুল ইসলামকে ফোন দিলে তারা কেউ ফোন তুলেনি বলে অভিযোগ করেন প্রতিবেশীরা। গত ১৮ তারিখ মঙ্গলবার নাজমা বেগমের পাশের বাড়ি ইমান আলীর বাড়িতে আনুমানিক রাত ২ টার দিকে বাড়ির পেছন দিয়ে ৩ টি সুরঙ্গ করে ভেতরে প্রবেশ করে ৩ টি মোবাইল ও স্বর্ন সহ প্রায় লক্ষাধিক টাকার মালামাল নিয়ে পালিয়ে যায়। এমন পরিস্থিতিতে আতংকে এলাকাবাসী। ভুক্তভুগিরা এলাকার নিরাপওা রক্ষার জন্য প্রশাসনের নিকট জোর দাবী জানায়।
ok


Related posts

মন্তব্য করুন