সর্বশেষ সংবাদ

ইভিএম দূরভিসন্ধিমূলক : বিএনপি

 

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহারের যে কথা নির্বাচন কমিশন বলছে, সেটিকে ‘দূরভিসন্ধিমূলক’ বলছে বিএনপি।

দলটির দাবি, ক্ষমতাসীনদের জনপ্রিয়তা শূন্যের কোটায় নেমে আসায় ‘কারসাজি করতে’ ইভিএম ব্যবহারের কথা বলা হচ্ছে।

শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এই কথা বলেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

তিনি বলেন, ‘দেশজুড়ে লুটপাট আর দুঃশাসনে ক্ষমতাসীনদের জনপ্রিয়তা এখন শূন্যের নিচে নেমে এসেছে। আর সেজন্যই প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা ভোট কারসাজির জন্য আবারো ইভিএম বিষয়টি সামনে নিয়ে এসেছেন। নির্বাচন কমিশনের বক্তব্য মূলত সরকারের ইচ্ছা পূরণেরই প্রতিফলন। নির্বাচন নিয়ে সরকারের আগ্রাসী ষড়যন্ত্র এখনো স্বমহিমায় বিরাজমান।’

ইভিএম দূরভিসন্ধিমূলক : বিএনপি

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বিতর্ক ওঠায় ইভিএম পদ্ধতি বন্ধ করা হচ্ছে দাবি করে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘জার্মানি, আমেরিকা, ভারতসহ অনেক দেশে ইভিএম মেশিন নিয়ে বিতর্ক হওয়ায় সেখানে এই মেশিনের ব্যবহার বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। ভারতে কীভাবে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট কারসাজির ঘটনা ঘটেছে সেটি ছবিসহ প্রকাশ করা হয়েছে। বর্তমানে আবারো ইভিএম বিষয়টিকে নির্বাচন কমিশন কর্তৃক জনসম্মুখে নিয়ে আসা দূরভিসন্ধিমূলক।’

লাগামহীণ নিত্যপণ্যের বাজার
রমজানের আগেই নিত্যপণ্যের বাজার লাগামহীন হয়ে পড়েছে উল্লেখ করে এজন্য ক্ষমতাসীনদের অরাজকতাকে দায়ী করেন রিজভী।

তিনি বলেন, ‘দেশজুড়ে সন্ত্রাস, লুটপাট, আওয়ামী সন্ত্রাসীদের অরাজকতায় এমনিতে সাধারণ মানুষের জীবন দুর্বিষহ হয়ে ওঠেছে। রমজানকে সামনে রেখে সিন্ডিকেট চক্র আরো বেপরোয়া হয়ে গেছে। সরকারের কোনো নিয়ন্ত্রণ না থাকায় গত এক সপ্তাহে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে দ্বিগুণ।’

বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘চাল, ডাল, চিনি, ছোলা, পেঁয়াজ-রসুন, মরিচ, মসলাসহ নিত্য ও ভোগ্যপণ্যের ব্যবসার পেছনে সরকার দলের একেকটি ব্যবসায়ী, আমদানিকারক, মিল মালিক, আড়তদার সিন্ডিকেট নেপথ্যে সক্রিয় রয়েছে। রমজান মাসকে পুঁজি করে ক্রেতাসাধারণের পকেট কাটতে নিত্যপণ্যের নিয়ন্ত্রিত বাজারকে অস্থির করে তুলেছে অতি-মুনাফালোভী চক্রগুলো।’

নিত্য প্রয়োজনীয় সকল পণ্যের মূল্য বৃদ্ধির জন্য উদ্বেগ প্রকাশ করে বাজার নিয়ন্ত্রণে পদক্ষপ নেওয়ার দাবি তোলেন রিজভী।

নারী নির্যাতনের বীভৎসতম হিড়িক
দেশব্যাপী চলছে নারী ও শিশু নির্যাতনের এক বীভৎসতম হিড়িক পড়েছে মন্তব্য করে বিএনপির এই সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, ‘ক্ষমতাসীন গোষ্ঠী ও প্রভাবশালী ব্যক্তিদের উচ্ছৃঙ্খল সন্তানরা এখন বেপরোয়া হয়ে নারীর প্রতি সহিংস হয়ে উঠেছে। আইন প্রয়োগকারী সংস্থার ওপর চাপ প্রয়োগ করে এরা নারকীয় তাণ্ডবলীলা চালিয়ে আইনের কাছে অধরাই থেকে যাচ্ছে।’

সম্প্রতি ঢাকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী এবং ঝিনাইদহে দুজন নারী শ্রমিককে শ্লীলতাহানির ঘটনা তুলে ধরে তিনি বলেন, ‘এ রকম অসংখ্য ঘটনা দেশবাসীকে গভীর উদ্বেগ-উৎকণ্ঠার মধ্যে নিপতিত করেছে। দেশে বিচারহীনতার সংস্কৃতি বিদ্যমান বলেই অনাচারের বিষাক্ত ডালপালা সারা দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। গণতন্ত্র অনুপস্থিতির কারণেই সামাজিক অপরাধ এখন ভয়াবহ রূপ নিয়েছে।’



Related posts

মন্তব্য করুন