দোহারে ভুয়া মুক্তিযোদ্ধাদের ভীরে অধিকার বঞ্চিত আসল মুক্তিযোদ্ধারা

 

আয়েশা সিদ্দিকী,স্টাফ রিপোর্টারঃ

ঢাকা জেলার দোহার উপজেলায় ভুয়া মুক্তিযোদ্ধাদের কারনে আসল অনেক মুক্তিযোদ্ধাররা তাদের প্রাপ্য অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। তেমনি একজন অধিকার বঞ্চিত মুক্তিযোদ্ধা রাইপাড়া গ্রামের মৃত আবু সাঈদ ভূইয়ার ছেলে আফসার উদ্দিন ভূইয়া।

দোহারে ভুয়া মুক্তিযোদ্ধাদের ভীরে অধিকার বঞ্চিত আসল মুক্তিযোদ্ধারা

আজ উপজেলা প্রশাসনের নির্মিত সেবাপ্রত্যাশীদের বিশ্রামকক্ষে অপেক্ষারত বীর মুক্তিযোদ্ধা আফসার উদ্দিন ভূইয়ার সাথে 24khobor.com এর নিজস্ব প্রতিনিধির সাথে সাক্ষাৎকারে বলেন, তিনি ১৯৭১ সালের ২৬ শে মে থেকে ১৬ ই ডিসেম্বর মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহন করেন। ১৯৭২ সালের ২২ শে জানুয়ারি তিনি “স্বাধীনতা সংগ্রামী” ও থানা কমান্ডারের প্রদানকৃত সনদপত্র প্রাপ্য তিনি। আর সেই অধিকার পাবার জন্য তিনি শুধু মাত্র একটি সনদ এর জন্য প্রশাসনের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন সেটা হচ্ছে বীর মুক্তিুযোদ্ধা আফসার আলী ভূইয়া একজন সত্যিকারের মুক্তিযোদ্ধা। তিনি বলেন মুক্তিযোদ্ধার ভাতা নয় শুধু সনদ পত্রটাই চাই । আমার সন্তানেরা যখন জানতে চায় আমার সনদপএ নেই কেন তখন আমি চোখের অশ্রু ছারা তাদের প্রশ্নের কোন উওর দিতে পারি না। ১৯৭১ সালে নিজের পরিবার ছেরে, মা মাটি দেশকে ভালবেসে হাতে অস্র নিয়ে জীবন বাজী রেখে যুদ্ধ করেছি আমার তো সেইটা অপরাধ নয়। তবে কেন আজ আমি অবহেলিত? ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে কি জবাব দেব? দিনের পর দিন আমি প্রশাসনের দ্বারে দ্বারে ঘুরছি কিন্তু তারা আমাকে অবহেলা ছারা কোন গুরুত্বই দিচ্ছে না। কিন্তু অনেক লোক আছে যারা যুদ্ধে না গিয়েও মুক্তিযোদ্ধ।মুক্তিযুদ্ধের সনদ নিয়ে দিব্যি ঘুরছেন। তার স্ত্রী হাজেরা বেগম বলেন, আমার স্বামী একজন মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে একটি সনদ পত্রই তার অধিকার।আর সেই অধিকারের জন্য প্রতিনিয়ত নিজের সাথে নিজেই যুদ্ধো করে চলছেন। তখন স্ত্রী হিসাবে নিজেকে অসহায় মনে হয়। তার মৃত্যুর আগে যেন তিনি তার অধিকার টুকু পায়, শুধু আমার স্বামীই নয় সকল আসল মুক্তিযুদ্ধারাই যেন তার প্রাপ্য অধিকার টুুকু পায় আমি তার জোর দাবী জানাই।

 



Related posts

মন্তব্য করুন