দোহারে স্ত্রীর পরকিয়া প্রেম ও প্রতারণায় সর্বস্বান্ত চা বিক্রেতা

No automatic alt text available.

 নিজস্ব প্রতিনিধি (ঢাকা দোহার)

পরকিয়া প্রেমের জের ধরে প্রতারণা করে বিভিন্ন এনজিও থেকে  ৩ ভরি স্বর্ণালংকার সহ আনুমানিক তিন লক্ষ আশি হাজার (৩৮০০০০) টাকা নিয়ে লাভলুর হাত ধরে গত ২০ মে সকাল ৬ ঘটিকায় মৃণালের স্ত্রী হাজেরা বেগম পালিয়ে গেছে বলে খবর পাওয়া গিয়াছে। ঢাকা জেলা দোহার উপজেলার কুসুমহাটী ইউনিয়নের সুন্দরীপাড়া গ্রামের মৃত ছাবু বেপারীর ছেলে মৃনাল (৫০) ১৯৮৮ সনে সাভারের খারিজপুর গ্রামের কুসুম আলীর মেয়ে হাজেরা বেগম (৪২)কে বিবাহ্ করেন মৃণাল।

দোহারে স্ত্রীর পরকিয়া প্রেম ও প্রতারণায় সর্বস্বান্ত চা বিক্রেতা

অভাব অনটনের সংসার দু’জনেই পরামর্শ করে অনেক কস্টে ২০১৩ সালে লেবাননে পাঠান স্ত্রী হাজেরা বেগমকে। তিন বছর একনাগাড় চাকুরী করে ২০১৬ সালে দেশ ফিরেন এবং সরাসরি বিমানবন্দর থেকে বাবার বাড়ীতে যান। কয়েক মাস পর মৃণালের বড় মেয়েকে সাথে নিয়ে হাজেরাকে নিজ বাড়িতে নিয়ে আসেন।দুই ছেলে এক মেয়ে নিয়ে তাদের সংসার হলেও মা মেয়ে উভয়ই প্রবাস জীবন কাটাতেন। মেয়ে আগে বাড়িতে আসলে তাকে বিয়ে দেওয়া হয়। কিন্ত মা তার খেয়াল খুশী নিজের ইচ্ছায় চালাতে থাকে। এদিকে চা বিক্রেতা মৃণাল প্রতিদিন সকাল ৬ ঘটিকায় তার চা দোকানে যায় রাত ৯/১০ ঘটিকায় বাড়িতে ফিরেন। এই ফাকে পূর্ব পরিচিত প্রবাস জীবনের প্রেমিক লাভলু তার বাড়িতে আসাযাওয়া করতে থাকে।পরিচয় জানতে চাইলে হাজেরা বলেন তার ধর্মের ভাই। গত বছর নুরুল্লাপুর মেলার ধামাইল উৎসবে মৃণালের বাড়িতে লাভলু (৫)পাঁচ দিন রাত যাপন সময়কালে গভীর রাতে তাদের বিভিন্ন আপত্তিকর অবস্থায় নিজের চোখে দেখে অসহায় মৃণাল প্রতিবাদ করলে প্রাননাশের হুমকি দেয় হাজেরা।কিন্ত এখানেই শেষ হয়নি, কিছুদিন পর মৃণাল তার ছেলেকে কাজ শিখাবে এবং হাজেরা পুনরায় বিদেশ যাবে নিজের চা দোকানের পুজি বাড়ানোর জন্য বিভিন্ন এনজিও থেকে আনুমানিক দুই লক্ষ ষাট (২৬০০০০) হাজার টাকা বাড়িঘড়ের জামানতে টিপসহি দিয়ে উত্তোলন করেন। যাহা হাজেরার কাছে গচ্ছিত থাকে। গচ্ছিত টাকা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে লাভলুর সাথে ২০ মে পালিয়ে যায়।এসব তথ্য আমাদের 24khobor.com.এর নিজস্ব প্রতিনিধিকে জানান মৃণাল। এ ঘটনায় মৃণাল বাদী হয়ে দোহার থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।এবিষয়ে দোহার থানা পুলিশের নিকট জানতে চাইলে তদন্ত কর্মকর্তা এসআই ছাইদুল বলেন অভিযোগ পেয়েছি । এবিষয় তদন্ত চলছে অপরাধীদের গ্রেফতার করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।



Related posts

মন্তব্য করুন