প্রতিটি মানব জেগে উঠুক ভ্রাতৃত্বের বন্ধনে। ঈদ শুভেচ্ছায়, অ্যাডভোকেট আব্দুল মান্নান খাঁন।

"ঈদকে সামনে রেখে জমে উঠেছে দোহারের ঈদ বাজার"

আবুল হাশেম ফকির।

“”প্রতিটি প্রানে ঈদের আনন্দ ছড়িয়ে পড়ুক, প্রতিটি মানব জেগে উঠুক ভ্রাতৃত্বের বন্ধনে।”সবার ঘরে ঘরে পৌঁছে যাক ঈদের অনাবিল আনন্দ। আলিঙ্গনের মধ্যো দিয়ে সবাই ভুলে যাক হিংসা-বিদ্বেষ।বিস্তৃত হোক সম্প্রীতি ও সৌহার্দপূর্ণ সম্পর্ক।

প্রতিটি মানব জেগে উঠুক ভ্রাতৃত্বের বন্ধনে। ঈদ শুভেচ্ছায়, অ্যাডভোকেট আব্দুল মান্নান খাঁন।

সাড়া দেশের মানুষ ধর্ম,বর্ণ, ও জাতীবেদ ভুলে পরস্পর পস্পপরের কল্যাণময় জীবন যাপনে এগিয়ে আসুক। শুধু ঈদের দিনই নয়,, এই বন্ধন জাগরন হোক প্রতিটি দিন, আর তা শুরু হোক ঈদের দিন দিয়েই,, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও মাদকমুক্ত হোক দেশ। ঈদুল-ফিতরে এটাই হোক আমাদের সকলের কামনা”। দেশবাসী সবাইকে পবিত্র ঈদুল-ফিতরের শুভেচ্ছা……. এমন শুভচিন্তা নিয়ে এবার পবিত্র ঈদ যাপন করবেন ভিন্ন থেকে ভিন্নতর ভাবে এমনটাই বললেন,সাবেক গৃহায়ন ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী ও আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাডভোকেট আব্দুল মান্নান খাঁন। তিনি 24 khobor.com এর বিশেষ প্রতিনিধিকে জানান ঈদের দিন নিজ এলাকা ঢাকা দোহারের কাটাখালী গ্রামের স্থানীয় (মসজিদের)ঈদগাহ্ মাঠে সর্বস্তরের সাধারন মানুষ ও নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে পবিত্র ঈদের নামাজ আদায় করবেন। দেশবাসীর শান্তি ও সমৃদ্ধির জন্য দোয়া করবেন। নামাজ শেষে এলাকাবাসী ও নেতাকর্মীদের সাথে ঈদের শুভেচ্ছা গ্রহন করবেন। তার পর ১৯৭১ সালের অসহায় মুক্তিযোদ্ধা পরিবার এবং পরবর্তীকালের খালেদা জিয়ার দূঃশাসন ও জ্বালাও পোড়াও আন্দোলনরত সময়কাল পঙ্গুত্ববরনকারী পরিবারের সাথে ফোনে ঈদের শুভেচ্ছা জানাবেন এবং খোঁজখবর নিবেন। দুপুর ১১ টা হইতে ১১.৩০ টার মধ্যে বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি অ্যাডভোকেট আব্দুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে পবিত্র ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন বলে জানান অ্যাডভোকেট আব্দুল মান্নান খাঁন। পরবর্তী সময়ে পরিবার,আত্বিয়-স্বজন, বন্ধু-বান্ধবের সাথে সময় কাটাবেন এবং ধর্মীয় অনুষ্ঠান সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক অনুষ্ঠানে যোগদান করে ঈদের পরবর্তী দিনগুলি অতিবাহিত করবেন।



Related posts

মন্তব্য করুন