সর্বশেষ সংবাদ

দোহারে চোর সন্দেহে যুবক’কে পিটিয়ে আহত

 দোহার প্রতিনিধিঃ

ঢাকা জেলার দোহার উপজেলায় মধুরখোলা গ্রামের বাসিন্দা জামাল হোসেন (২১) নামে এক যুবক’কে চোর সন্দেহে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে।আহত জামাল দোহার উপজেলার উত্তর মধুরখোলা গ্রামের শেখ মোঃ হযরত আলীর(৫৫)ছেলে।

দোহারে চোর সন্দেহে যুবক'কে পিটিয়ে আহত

ঘটনার সত্যতা জানাতে গিয়ে শেখ হযরত আলী জানান,গতকাল শুক্রবার সকাল ৮:০০ টায় তার ছেলে (আহত জামাল হোসেন) কাজে যায়।পরে কাজের স্থান থেকে সকাল ১১:০০টার সময় একই এলাকার সালাম মৃধার ছেলে সুমন,আকবর মৃধার ছেলে ওবাইল, শেখ সিদ্দিকের ছেলে সাইফুল,আব্দুল বাতেনের ছেলে আক্কাস ও কপিল শেখের ছেলে আলামিন (যাদের বয়স ১৮থেকে ২৫ পর্যন্ত) নামক কিছু যুবক এসে জামালকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায় ও মারধর করে।পরে দুপুর সাড়ে ১২ টায় জামালের পরিবার আশেপাশের লোকদের কাছ থেকে ছেলের সন্ধান জানতে পেরে মইতপাড়া কাঠবাগানে নিজ ছেলেকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে বলে জানান জামালের মা।পরে স্থানীয় লোকজনের সহযোগীতায় আহত জামালকে দোহার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এই ব্যাপারে আহত জামালের পিতা শেখ হযরত আলী নিজ বাদী হয়ে দোহার থানায় সুমন, ওবাদুল, আলামিন, আক্কাস ও সাইফুলসহ অজ্ঞাত ৭/৮ জনের নামে একটি অভিযোগ দাখিল করেন।তবে ঘটনার পরপরই জড়িতরা পলাতক আছে বলে জানান শেখ হযরত আলী।তবে বেশ কিছুদিন আগে সুমনদের বাড়িতে কিছু টাকা চুরি হয়।সেই চুর সন্দেহে অহেতুক মিথ্যা অপবাদ দিয়ে সুমন সহ তার সহযোগীরা মারধর করে,কিন্তু এই চুরি সম্বন্ধে আমি কিছুই জানি না বলে জানান জামাল হোসেন।বর্তমানে জামাল হোসেন উপজেলা স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন আছে। এ বিষয়ে দোহার থানা এসআই নূরুল আমিন জানায়, এ বিষয়ে আহতর বাবা নিজ বাদি হয়ে দোহার থানায় একটি অভিযোগ করা করছেন।পরে অভিযোগ পএটি ফুলতলা তদন্ত কেন্দ্রে প্রেরণ করা হয়েছে।দোষীদের গ্রেফতার করে জরুরি ভাবে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।



Related posts

মন্তব্য করুন