দোহারে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে গৃহবধুকে পিটিয়ে আহত

 

মো:আসাদ মাহমুদ

ঢাকার দোহারে কার্তিকপুর নিবাসী শাহানা(২৫)নামে এক গৃহবধুকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করার অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে। এ বিষয়ে আহত’র মা আনোয়ারা(৫০) জানায়,আমার মেয়ে শাহানা(২৫)গ্রাম কার্তিকপুর,পিতা শেখ মুসলেম(৬০) এর সাথে বড় বাস্তা নিবাসী আনছার আলীর(৬৪) ছেলে হাকেম আলী শিকদার(৩০)এর সাথে বিগত ৫বছর আগে বিয়ে হয়।

দোহারে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে গৃহবধুকে পিটিয়ে আহত করল স্বামী

বর্তমানে তাদের ৪বছরের একটি মেয়ে সন্তান আছে।তবে বিয়ের পর-পরই স্বামী হাকেম আলী সাংসারিক খুঁটিনাটি নিয়ে স্ত্রী শাহানার উপর শারীরিক নির্যাতন করত।এক পর্যায়ে শাহানা তা সহ্য না করতে পেরে বিয়ের ২বছর পর বিদেশে(দুবাই)চলে যায় কাজ করার জন্য।পরে গত ৬মাস আগে শাহানা দেশে ফিরে আসে,এ সংবাদে তার স্বামী হাকেম আলী তাদের বাড়িতে গিয়ে ০৫-০৪-১৭ইং তারিখে এলাকার গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গদের শর্ত-সাপেক্ষে আপোষ মিমাংশা করে শাহানাকে তার স্বামী বাড়ি নিয়ে যায়।তবুও সুদরায়নি হাকেম আলী।প্রতিনিয়ত মারধর খেয়ে অতিষ্ট হয়ে আবার বাবার বাড়ি চলে আসে শাহানা।পরে গত ১০-৭-১৭ইং তারিখে আবার তার স্বামী আবারো তার বাবার বাড়িতে গিয়ে তাকে ও তার মেয়েকে তার স্বামী বাড়ি নিয়ে আসে।পরে আজ সকালে স্বামী হাকেম আলীর বাবা,শাহানার শ্বশুরকে ভাত কম দেওয়া নিয়ে কথা কাটাকাটিতে শাহানাকে মেরে রক্তাক্ত করে স্বামী।এতে শাহানার মুখে ও শরীরের বিভিন্ন অংশে রক্তক্ষরন ও জখমের সৃষ্টি হয়। পরে শাহানার মা লোকমুখে ঘটনাটি জানতে পেরে শাহানাকে তার স্বামীর বাড়ি গিয়ে আহত অবস্থায় দোহার উপজেলা স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তার অবস্থা আশংকাজনক দেখে ভাল চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি রাখে। কিন্তু কেনইবা স্বামী তার স্ত্রী’র উপর এমন অমানুষিক নির্যাতন চালায় এমন একটি প্রশ্নের জাবাবে আহত’র মা আনোয়ারা ২৪খবরকে জানায়,শাহানার স্বামী হাকেম আলী একজন মাদকসেবী,সে প্রতিনিয়ত নানান নেশাজাত দ্রব্য সেবেন করে বাড়িতে এসে শাহানাকে মারধর করে।এ বিষয়ে আহত’র মা নিজ বাদী হয়ে দোহার থানায় একটি অভিযোগ করেন। দোহার থানা এস আই জামিনুর রহমান জানায়,আহত শাহানার মা আনোয়ারা নিজ বাদী হয়ে দোহার থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।ঘটনার সত্যানুসন্ধানের ভিওিতে আইনানুগ ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।

 

 



Related posts

মন্তব্য করুন