সর্বশেষ সংবাদ

একদিন কাশবনে নীল পরীর সঙ্গে

আকাশ পানে চেয়ে চিত্রনায়িকা পরীমণি। ছবি: শামছুল হক রিপন, প্রিয়.কম।

(প্রিয়.কম) নীল চু‌রি হা‌তে তার পর‌নে নীল শা‌ড়ি। অপলক দৃষ্টিতে তাকিয়ে থেকে চোখের পলক পড়ে না প্রকৃতির। হাসি, যেন হেমন্তের বাতাসে মিশে গিয়ে ভেসে আসে মৃদ মৃদ ছন্দে। কোকিলা কণ্ঠের কথা শুনে প্রেমে পড়ে কোকিলও চুপ হয়ে যায়। তার চোখের ভাষা; হাসি, কথা, সবই মুগ্ধ হয়ে থমকে যায় তার রূপে। আর এই রূপ নিয়েই মিডিয়ায় পথচলা শুরু তার মডেলিং দিয়ে। তারপর নাটক। এরপর রুপালি পর্দায়। হ্যাঁ, নাম তার পরীম‌ণি।

মডেলিং কিংবা নাটকে অভিনয় করে যতটা না আওয়াজ উঠেছিল তার। সেখানে থেকে বের হয়ে রীতিমত রূপালি পর্দায় পা রাখাতেই তাকে নিয়ে হইচই শুরু হয়ে যায়। ছবি মুক্তির আগেই তিনি চুক্তিবদ্ধ হয়ে যান প্রায় ২৩টি চলচ্চিত্রে। আর এই হইচইয়ের মধ্যেই মুক্তি পায় তার প্রথম চলচ্চিত্র ‘ভালোবাসা সীমাহীন’। তারপর পরই শুরু হয় আলোচনা-সমালোচনা। সেই সমালোচনার পাত্তা না দিয়েই পরী তার অভিনয়ের ডানা মেলে ধরতে শুরু করেন। মুক্তি পায় তার আরও বেশ কয়েকটি ছবি। শেষ যে চলচ্চিত্রটি মুক্তি পেয়েছে তার নাম ‘রক্ত’। এ চলচ্চিত্রটিতে পরীকে দেখে তার ভক্তরা লুফে নিয়েছেন। কারণ প্রথমবারের মতো রোমান্টিকতা থেকে বের হয়ে অ্যাকশনধর্মী চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন তিনি।

এই চলচ্চিত্রটিতে ‘ডানা কাটা পরী’ নামের গানটি বেশ জনপ্রিয়তা পায়। সত্যি তার ডানা না থাকলেও পৌঁছে গিয়েছেন সুদূর চীনে। তিনি চীনের চলচ্চিত্রে অভিনয় করবেন। চলচ্চিত্রটির নাম ‘চেজিং মার্ডার’, পরিচালনা করবেন হুজিয়াহুই এবং ডেনিপ্যাং। এটি প্রযোজনার দায়িত্বে রয়েছেন চীনের হুবে ফেঙ্গু তিয়ানজিয়া ফিল্ম কোম্পানি লিমিটেড। এতে একজন আন্তর্জাতিক পুলিশ সদস্য চরিত্রে অভিনয় করবেন তিনি। তবে এখনও চুক্তিবদ্ধ হননি। হয়ে গেলেই শুরু হয়ে যাবে দৃশ্যধারণ।

বর্তমানে মুক্তির অপেক্ষায় থাকা বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্রের মধ্যে থাকা গিয়াস উদ্দিন সেলিম এর ‘স্বপ্ন জাল’ নিয়ে বেশ আগে ভাগেই মিডিয়া পাড়ায় গুঞ্জন চলছে। কারণ নির্মাতা সেলিমের প্রথম চলচ্চিত্র ‘মনপুরা’র জনপ্রিয়তার কথা আসলে কারও অজানা নেই। আর তাই এই নির্মাতার দ্বিতীয় চলচ্চিত্রে পরীকে আসলে ঠিক কোন রূপে দর্শক দেখবেন, তা চমক হিসেবেই রেখেছেন নির্মাতা ও অভিনয় শিল্পীরা। এখন দেখা যাক মুক্তির পর দর্শক আসলে কীভাবে লুফে নেন চলচ্চিত্রটি।

উড়ু উড়ু এ মন তো! হয়নি আগে এমন তো? এখন যে হেমন্ত! আর তাইতো মনের ছোট্ট একটি ঘর সাজাচ্ছেন তিনি। ঘরের দেয়ালে আঁকা নানা রঙের স্বপ্ন। এ ঘরটিতে শান্ত একটি মেয়ে থাকে। কিন্তু সঙ্গীটি হবে কে? এই প্রশ্নের উত্তর আর দিতে হবে না ইতোমধ্যেই সবাই জানেন। সাংবাদিক তামিম হাসানের সঙ্গে চলছে তার প্রেম। চলচ্চিত্রের পাশপাশি তিনি ঘর বাঁধার স্বপ্ন দেখছেন।

তবে তার ভক্তরা প্রায়ই নাকি তার চেহারা ও চুল দেখে ভুল করে ভাবেন তিনি নাকি বার্বি ডল, এক কথায় আবার তা ভুলও নয়। যদি ধরে নেওয়া হয়, তাহলে তিনি তাই। যদি মার্কেটে সাজানো ম্যানিকুইনের পাশে দাঁড়ান তিনি, বোঝার উপায় নেই তিনি মানুষ নাকি ম্যানিকুইন। মেয়েটি নিজের মনের অনেক স্বপ্নই আঁকেন, নানা রঙের আল্পনা দিয়ে। কখনও স্বপ্নগুলো সীমানা ছাড়িয়ে চলে যায় দূরে বহু দূরে। আর এভাবেই এগিয়ে যাচ্ছেন ডানাহীন চিত্রনায়িকা পরীমণি।

Save

News source : Priyo.com



Related posts

মন্তব্য করুন