সর্বশেষ সংবাদ

নবাবগঞ্জ পাইলট উচ্চ মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে ব্যতিক্রমী ভাবে জেএসসি পরিক্ষা

আলীনূর ইসলাম মিশু:

ঢাকার নবাবগঞ্জ উপজেলা সদরের পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় জেএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রটিতে এবার পরীক্ষা মনিটর করতে ব্যতিক্রমী উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। ফলে এখন আর পরীক্ষা কক্ষে প্রবেশ করে নয় খোদ অধ্যক্ষের কক্ষে বসেই পরিদর্শকরা শিক্ষার্থীদের দেখভাল করতে পারছেন।

নবাবগঞ্জ পাইলট উচ্চ মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে ব্যতিক্রমী ভাবে জেএসসি পরিক্ষা

গতকাল সকালে জেএসসি পরীক্ষার প্রথম দিনে কেন্দ্র গেলে দেখা যায়, শিক্ষকের বাইরে শুধু শিক্ষার্থীরা বসে নিরব পরিবেশে পরীক্ষা দিচ্ছে। উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা, শিক্ষা কর্মকর্তা, ওসিসহ অধ্যক্ষ সবাই অফিস কক্ষে বসেই সিসি ক্যামেরার মাধ্যমে পরীক্ষা মনিটর করছেন। এ প্রতিষ্ঠানটি যেন ডিজিটাল প্রক্রিয়ার অনেক ধাপই এগিয়ে গেছে। শুধূ পরীক্ষা মনিটরং ই নয়, বিদ্যালয়ের চারপাশের রাস্তাগুলোও সিসি ক্যামেরার আওতায় আনা হয়েছে। এতে বখাটে ছেলেরাও রাস্তার পাশে দাড়িয়ে ছাত্রীদের উত্যক্ত করলে তা খুঁজে বের করা যাবে বলে মনে করেন বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। অধ্যক্ষ সাইদুর রহমান জানান, আমাদের প্রতিষ্ঠানের সাবেক সভাপতি দোহার নবাবগঞ্জের সাংসদ অ্যাডভোকেট সালমা ইসলামের সহযোগিতায় বিদ্যালয় অনেক উনśয়ন কাজ করতে পেরেছি। এটাও তারই উদ্যোগ ছিলো। পরবর্তীতে আমরা বর্তমান সভাপতি উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা তোফাজ্জল হোসেনের পরামর্শে তা বাস্তবায়ন করেছি। এটা করাতে অনেক ভালো হয়েছে। বিদ্যালয় সীমানার চারপাশেও সুরক্ষিত থাকবে। জানা গেছে, প্রতিষ্ঠানের সবগুলো শ্রেণী কক্ষেই সিসি ক্যামেরা রয়েছে। অধ্যক্ষের কক্ষে বসেই এসব নিয়ন্ত্রণ করা হয়। শ্রেণীকক্ষসহ ৭৬টি সিসি ক্যামেরা বসানো হয়েছে। শুধু পরীক্ষার সময় নয়, অন্য সময়ও শ্রেণী কক্ষে শিক্ষাকরা কিভাবে পাঠদান করছেন তা দেখার ব্যবস্থা আছে। এতে লেখাপড়ার মানও ভালো হবে। সুশৃংখল পরিবেশে ছাত্রীরা পড়াশোনা করছে কিনা তা দেখার সুযোগ থাকছে। পরীক্ষা চলাকালীন পরিদর্শনে গিয়ে অহেতুক বিঘś ঘটানোও রোধ করা যাবে। কারণ অফিসে বসেই সব চিত্র স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে।



Related posts

মন্তব্য করুন