সর্বশেষ সংবাদ

নাগরিক সমাবেশে কেরাণীগঞ্জ থেকে শাহীন আহমেদের নেতৃত্বে নেতা কর্মীদের ঢল

১৯৭১ সালের ৭ মার্চ যে রেসকোর্স ময়দানে (বর্তমান সোহরাওয়ার্দী উদ্যান) ঐতিহাসিক ভাষণ দিয়েছিলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সেই ময়দানেই তার ভাষণের ইউনেস্কোর বিশ্ব স্বীকৃতি উদযাপন করা হচ্ছে। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে নাগরিক কমিটির ব্যানারে সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছে।

নাগরিক সমাবেশে কেরাণীগঞ্জ থেকে শাহীন আহমেদের নেতৃত্বে নেতা কর্মীদের ঢল

৭ মার্চের ভাষণ ইউনেস্কোর বিশ্ব ঐতিহ্যের দলিল (ওয়ার্ল্ডস ডকুমেন্টারি হেরিটেজ) হিসেবে স্বীকৃতি অর্জন করায় ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ এই সমাবেশের আযোজন করে।

দেশের বিশিষ্ট নাগরিকদের উদ্যাগে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া এই সমাবেশকে স্মরণকালের সর্ববৃহৎ সমাবেশে পরিণত করতে কেরাণীগঞ্জেও নেয়া হয় ব্যপক আয়োজন। এ উপলক্ষে কেরাণীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক ও উপজেলা চেয়ারম্যান শাহীন আহমেদের নেতৃত্বে শনিবার কেরাণীগঞ্জ থেকে প্রায় ২০ সহস্রাধিক নেতা-কর্মী অংশ গ্রহন করেছে।

কেরাণীগঞ্জ উপজেলা আ.লীগ সূত্রে জানা যায়, দিবসটিকে ঘিরে আগ থেকেই প্রস্তুতি নেয় কেরাণীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ ও তাদের সকল অঙ্গ সংগঠন। অধিক লোক সমাগমের লক্ষে বর্ধিত সভা ডেকে আলাদা ভাবে প্রস্তুতিও নেয় প্রত্যেক অঙ্গ সংগঠন । সে লক্ষে শাহীন আহমেদের নির্দেশ মোতাবেক ব্যনার-ফেস্টুন ও ব্যান্ডপার্টি সহকারে কেরাণীগঞ্জের বিভিন্ন ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ ও সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মীরা মিছিলে মিছিলে একাকার হয়ে শনিবার বেলা দেড়টা থেকে জড়োহতে থাকে কদমতলী গোলচত্বর এলাকায় । পরে বেলা আড়াইটার দিকে তারা দ্বিতীয় বুড়িগঙ্গা সেতুর ওপরদিয়ে রাজধানীতে প্রবেশ করেন। এসময় দ্বিতীয় বুড়িগঙ্গা সেতুর দক্ষিণ প্রান্ত থেকে নয়াবাজার প্রান্ত পর্যন্ত এলাকা নেতাকর্মীদের পদচারনায় কানায় কানায় পরিপুর্ণ হয়ে যায়। তাদের মিছিলে মুখরিত হয়ে ওঠে পুরো এলাকা।

এ রিপোর্ট সংগ্রহকালে শনিবার দুপুরে আগানগর এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, আগানগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মীর আসাদ হোসেন টিটু, সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. জাকির আহম্মেদ, দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ থানা যুব লীগ সভাপতি মাহমুদ আলম ও থানা ছাত্রলীগের আহবায়ক ফারুক হোসেন মিঠুর নেতৃত্বে কয়েক হাজার নেতা-কর্মীকে এ কর্মসূচীতে অংশগ্রহণ করতে দেখা গেছে।

এছাড়া পূর্ব আগানগর এলাকা থেকে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও গুদারাঘাট আঞ্চলিক শাখা আওয়ামী লীগ নেতা হাজী মো. স্বাধীন শেখের নেতৃত্বে শত-শত নেতা-কর্মী মিছিলসহকারে এসে কদমতলী এলাকায় যোগ দেয়।

এসময় ব্যবসায়ী নেতা স্বাধীন শেখ বলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক শাহীন আহমেদের ডাকে সারা দিয়ে তারা আজকের এ কর্মসূচীতে স্বত:স্ফুর্ত অংশ গ্রহন করেন।

নেতা-কর্মীদের সাথে নিয়ে মিছিলে অংশ গ্রহণ করেতে দেখাগেছে কালিন্দী ইউপি চেয়ারম্যান হাজী মো. মোজাম্মেল হোসেনকে। এসময় তার সাথে আরো উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ নেতা মো.হুমায়ুন গনি, হাজী মো.জাহিদ হোসেন রনি, ঢাকা জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো.ইয়ামিন।

এছাড়াও কেরাণীগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে হাজার হাজার নেতা-কর্মী ব্যানার-ফেস্টুন ও ব্যান্ডপার্টিসহকারে এ কর্মসূচীতে অংশনেয়।



Related posts

মন্তব্য করুন