সর্বশেষ সংবাদ

রাডার দুর্নীতি: এরশাদের বিরুদ্ধে যুক্তি উপস্থাপন ১৩ নভেম্বর

dsadসাবেক রাষ্ট্রপতি জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের বিমানের রাডার ক্রয়সংক্রান্ত দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) করা মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের যুক্তি উপস্থাপনের জন্য ১৩ নভেম্বর দিন ধার্য করেছেন আদালত। ঢাকা মহানগর দায়রা জজ জহুরুল হক বৃহস্পতিবার এ আদেশ দেন। এ দিন যুক্তিতর্ক উপস্থাপনের দিন ধার্য ছিল। রাষ্ট্রপক্ষের প্রস্তুতি না থাকায় সময়ের আবেদন করলে আদালত পরবর্তী যুক্তিতর্ক উপস্থাপনের জন্য ১৩ নভেম্বর দিন ধার্য করেন।
মামলায় এরশাদ ছাড়াও অন্য আসামিরা হলেন, বিমানবাহিনীর সাবেক সহকারী প্রধান মমতাজ উদ্দিন আহমেদ, বিমানবাহিনীর সাবেক প্রধান সুলতান মাহমুদ ও ইউনাইটেড ট্রেডার্সের পরিচালক এ কে এম মুসা। মামলার শুরু থেকে মুসা পলাতক রয়েছেন।
১৯৯২ সালের ৪ মে তৎকালীন দুর্নীতি দমন ব্যুরো মামলাটি করে। ১৯৯৪ সালের ২৭ অক্টোবর আদালতে চার্জশিট দাখিল করা হয়। ১৯৯৫ সালের ১২ আগস্ট আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন আদালত।
অভিযোগে বলা হয়, বিমানবাহিনীর তৎকালীন সহকারী প্রধান মমতাজ উদ্দিন আহমেদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের কাছে বিমানবাহিনীর জন্য যুগোপযোগী রাডার ক্রয়ের আবেদন করেন। রাষ্ট্রপতির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এক সভায় ফ্রান্সের থমসন সিএসএফ কোম্পানি নির্মিত অত্যাধুনিক একটি হাইপাওয়ার রাডার ও দু’টি লো লেভেল রাডার ক্রয়ের প্রস্তাব অনুমোদিত হয়।
তৎকালীন সেনাপ্রধান এরশাদসহ অপর আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে আর্থিক সুবিধাপ্রাপ্ত হয়ে থমসন সিএসএফ কোম্পানির রাডার না কিনে বেশি দামে যুক্তরাষ্ট্রের ওয়েস্টিং কোম্পানির রাডার কেনেন। এতে সরকারের ৬৪ কোটি ৪ লাখ ৪২ হাজার ৯১৮ টাকা আর্থিক ক্ষতি হয়।



Related posts

মন্তব্য করুন